চাকদহ,নদীয়া:

১০ ই ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখে

মধ্যাহ্নকালীন ক্ষণে নদিয়া জেলার চাকদহ গ্রামের বাসিন্দা শ্রী যুক্ত প্রহ্লাদ প্রিয় দাস প্রভুর শ্রদ্ধাকুটির প্রাঙ্গণে ৩৫০ জন ভক্তসঙ্গে শুরু হল এক মহতীয় দিব্য মধ্যাহ্নকালীন ভোগ আরতি অনুষ্ঠান ও নৃসিংহ পূজা। এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ইসকন নামহট্ট বিভাগের অন্যতম প্রচারক তথা মুর্শিদাবাদ ও নদিয়া জেলার ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রচারক পূজ্যপাদ বসুদেব নন্দন দাস ব্রহ্মচারী প্রভু এবং তার সহকারী বৃন্দ। ভজন কীর্তন মঙ্গলাচরণের মধ্যাহ্নকালীন ভোগআরতি অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা হয়। পূজ্যপাদ বসুদেব নন্দন প্রভু এই শ্রদ্ধাকুটির প্রাঙ্গণে শ্রীল প্রভুপাদ রচিত শ্রীমদ্ভগবদগীতা থেকে পাঠ প্রদান করেন। সকাল ১১:০০ থেকে দুপুর ৩:০০ টা পর্যন্ত উক্ত অনুষ্ঠান সংঘটিত হয়। পূজ্যপাদ বসুদেব প্রভুর পাঠ প্রদানের পর এই শ্রদ্ধাকুটির প্রাঙ্গণে মধ্যাহ্নকালীন ভোগ আরতি অনুষ্ঠিত হয় এবং সবশেষে উপস্থিত সমস্ত ভক্তদের মহাপ্রসাদ বিতরণের মাধ্যমে অনুষ্ঠানটির পরিসমাপ্তি ঘটে।

এইদিন শ্রীপাদ বসুদেব নন্দন প্রভু একটি শ্রীমদ্ভগবদগীতা এবং দুটি জপমালা বিতরণ করেন।

অন্যদিকে বৈকাল ৪:০০ ঘটিকায় নগর পরিক্রমার মাধ্যমে মিলন গড়ের এই স্থান মধুময় হয়ে  ওঠে এরপর সন্ধ্যা ৫:৩০ টায় বৈষ্ণব মহাজন বিরচিত ভজন কীর্তনের মাধ্যমে এই শ্রদ্ধাকুটির প্রাঙ্গণ আনন্দমুখর হয়ে ওঠে। এরপর পূজ্যপাদ বসুদেব নন্দন প্রভু এই স্থানে সন্ধ্যা ৬:৩০ থেকে প্রায় ১৫০ জন ভক্তবৃন্দদের সহিত সন্ধ্যারতিতে অংশগ্রহণ করেন। সন্ধ্যা আরতির পর শ্রীপাদ  বসুদেব নন্দন প্রভু শ্রীমদ্ভগবদগীতা থেকে প্রায় ১৫০ জন ভক্তদের উদ্দেশ্যে আলোচনা করেন। প্রভুর পাঠ প্রদানের পর এই স্থানের সমস্ত ভক্তের উদ্দেশ্যে মহাপ্রসাদ বিতরণ করা হয়।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here