হুগলি:

হুগলির বলাগর থানার অন্তর্গত মিলনগড় গ্রামের এক শ্রদ্ধাকুটির প্রাঙ্গণে ৩০ শে নভেম্বর ২০১৯  মধ্যাহ্নকালীন সময়ে এক দিব্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এই শ্রদ্ধাকুটির প্রাঙ্গণে উপস্থিত ছিলেন হুগলি জেলার ভারপ্রাপ্ত জেলা পরিদর্শক পূজ্যপাদ আত্মানন্দ প্রভু। এরপর বৈষ্ণব মহাজন বিরচিত ভজন কীর্তন এর মাধ্যমে এই স্থান আনন্দ মুখর হয়ে ওঠে দুপুর ১২ টা থেকে ২:৩০ টা পর্যন্ত এই অনুষ্ঠান চলতে থাকে। এই অনুষ্ঠানে পূজ্যপাদ আত্মানন্দ প্রভু শ্রীল প্রভুপাদ রচিত শ্রীমদ্ভাগবতম থেকে কৃষ্ণ ভাবনামৃত এর গুরুত্ব সম্পর্কে পাঠ প্রদান করেন। পূজ্যপাদ আত্মানন্দ প্রভুর শ্রীমুখ থেকে শ্রীমদ্ভাগবতম কথা শ্রবণ করে এখানকার সমস্ত ভক্ত অত্যন্ত খুশি হন। এরপর উপস্থিত প্রায় ১০০ জন ভক্ত সঙ্গে মধ্যাহ্নকালীন ভোগ আরতি পরিবেশিত হয় এবং আরতির পর সমস্ত ভক্তের উদ্দেশ্যে মহাপ্রসাদ বিতরণ করা হয়।

একই দিনে চুঁচুড়া থানার ব্যান্ডেলের নলডাঙ্গা নারায়ণপুরে এক  শ্রদ্ধাবান গৃহে সান্ধ্যকালিন অনুষ্ঠানের স্তভ আয়োজন করা হয়। এই অনুষ্ঠানে প্রায় ৩০-৩৫ জন ভক্ত উপস্থিত ছিলেন। সন্ধ্যা ৬ টা থেকে রাত্রি  ৮.৩০ পর্যন্ত এই  অনুষ্ঠান পরিচালিত হয়। সন্ধ্যা ৫.৩০ ঘটিকায় বৈষ্ণব মহাজন বিরচিত ভজন কীর্তন অনুষ্ঠিত হয়। ভজন কীর্তনের পর এই শ্রদ্ধাকুটির প্রাঙ্গনে সমস্থ ভক্তকে একত্রিত করে সন্ধ্যাআরতি পরিচালিত হয়। এরপর পুজ্যপাদ আত্মানন্দ প্রভু উপস্থিত ভক্ত সঙ্গে শ্রীল প্রভুপাদ রচিত  শ্রীমদ্ভগবদগীতা থেকে পাঠ প্রদান করেন। সবশেষে সমস্থ ভক্তদের উদ্দেশ্যে মহাপ্রসাদ বিতরণ করা হয়।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here