পাট্টাবুকা,করিমপুর,নদিয়াঃ

২৬ শে অক্টোবর ২০১৯ তারিখে নদীয়া জেলার পাট্টাবুকায় এক শ্রদ্ধা কুটির  প্রাঙ্গণে সান্ধ্যকালীন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। সন্ধ্যা ৫:৩০ ঘটিকায় ভজন কীর্তন এর মাধ্যমে উক্ত অনুষ্ঠানটি সূচনা হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ইসকন নামহট্ট বিভাগের অন্যতম জেলা প্রচারক তথা নদীয়া জেলার ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রচারক পূজ্যপাদ বসুদেব নন্দন দাস ব্রহ্মচারী প্রভু এবং তাঁর সহকারী বৃন্দ। এরপর প্রায় ১৫০ জন ভক্তের উপস্থিতিতে শুরু হয় সন্ধ্যা আরতি কীর্তন। সন্ধ্যা আরতির পর পূজ্যপাদ বসুদেব নন্দন প্রভু উপস্থিত সমস্ত ভক্তের সম্মুখে ভগবান শ্রী কৃষ্ণের বাল্যলীলা কথা ও দামবন্ধন লীলা বর্ণনা করেন এবং দামোদর মাসের মাহাত্ম্য সম্পর্কে পাঠ প্রদান করেন। এরপর সমস্ত ভক্ত একত্রিত হয়ে দামোদর অষ্টকম কীর্তন পরিবেশনের মাধ্যমে ভগবান শ্রী দামোদর কে দ্বীপ প্রদানে অংশগ্রহণ করেন। অবশেষে সমস্ত ভক্তদের উদ্দেশ্যে মহা প্রসাদের সুব্যবস্থা করা হয়েছিল। এই স্থানে তিনি এক ভক্তকে শ্রীল প্রভুপাদ রচিত শ্রীমদ্ভগবদগীতা বিতরণ করেন।

পরদিন অর্থাৎ ২৭/১০/২০১৯ তারিখে ভোর ৪:৩০ ঘটিকায় শুভ মঙ্গল আরতি ও জপ অনুশীলন সম্পন্ন করে  সকাল ৭:০০ ঘটিকায় বিভাগ কৃষ্ণ দাস প্রভুর শ্রদ্ধা কুটির প্রাঙ্গণে শ্রী গুরু পূজা শ্রীগুরু আরতী সম্পন্ন করে শ্রীল প্রভুপাদের রচিত শ্রীমদ্ভাগবত থেকে পাঠ প্রদান করেন। এই স্থানেই পূজ্যপাদ বসুদেব নন্দন দাস প্রভু মধ্যাহ্নকালীন ভোগ আরতি সম্পন্ন করেন এবং ভগবান শ্রী দামোদরের উদ্দেশ্যে দ্বীপ প্রদান করেন। তারপর উপস্থিত সকল ভক্তবৃন্দের উদ্দেশ্যে দামোদর মাহাত্ম্য কথা বর্ণনা করেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here